পানি বিশুদ্ধকরণ সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি লিখে উপস্থাপন কর।

পানি বিশুদ্ধকরণ সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি লিখে উপস্থাপন কর। বাংলা, ইংরেজি, গণিত, বিজ্ঞান / বাংলাদেশ এবং বৈশ্বিক পরিচয়, আইসিটি, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, ভূগোল, বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্ব সভ্যতা, হিসাববিজ্ঞান, ব্যবসায়িক উদ্যোগ এর জন্য ৯ম ক্লাসের অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান। Class 9 to Class 5th Assignment. নবম শ্রেনীর প্রথম থেকে ষষ্ঠ সকল সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট ২০২০। নবম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান সমাধান। Class 9 Science Assignment 2021 || 5th week || ৯ম শ্রেণির বিজ্ঞান এসাইনমেন্ট ২০২১ ||৫ম সপ্তাহ . নবম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট l

Class Nine Science Sixth Week Assignment Syllabus

Class-9-Science

নবম শ্রেণির ৫ম সপ্তাহের বিজ্ঞান সমাধান।

এ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজের ক্রম

এ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ-২

অধ্যায় ও অধ্যায়ের শিরােনাম

দ্বিতীয় অধ্যায়: জীবনের জন্য পানি

পাঠ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত পাঠ নম্বর ও বিষয়বস্তু

২.১.১ পানিরধর্ম

২.১.২ পানিরউৎস

২.১.৩ জলজ উদ্ভিদের জন্য পানির প্রয়োজনীয়তা,

২.২ পানির মানদণ্ড

২.৩ পানির পুনরাবর্তন ও পরিবেশ সংরক্ষণে পানির ভূমিকা

২.৩ পানির পুনরাবর্তন ও পরিবেশ সংরক্ষণে পানির ভূমিকা

২.৪ পানি বিশুদ্ধকরণ

২.৫ বাংলাদেশে পানির উৎসে দূষণের কারণ

২.৫.১ উদ্ভিদ, প্রাণী এবং মানুষের উপর পানি দূষণের প্রভাব

২.৬ বৈশ্বিক উষ্ণতা

২.৭ বাংলাদেশে পানি দূষনের প্রতিরােধ কৌশল এবং নাগরিকের দায়িত্ব

২.৮ পানির উৎসে হুমকি

২.৯ পানি প্রবাহের সর্জনীনতা এবং আন্তর্জাতিক নিয়মনীতি

এ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ

ক) পানি বিশুদ্ধকরণ সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি লিখে উপস্থাপন কর।

১নং প্রশ্নের উত্তর (ক) পানি বিশুদ্ধকরণ প্রক্রিয়াসমূহ: ভূপৃষ্ঠে যে পানি পাওয়া যায় তাতে নানারকম ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ, এমনকি রোগ সৃষ্টি করতে পারে এরূপ জীবন ধ্বংসকারী জীবণু রয়েছে তাই ব্যবহারের আগে পানি বিশুদ্ধ করে নিতে হয় । ভূগর্ভের পানি সাধারণত রােগ জীবাণু মুক্ত, কিন্তু এই পানিতে আর্সেনিকের মতাে নানা রকম ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থের উপস্থিতির কথা এখন আমরা সবাই জানি।

পানি কীভাবে বিশুদ্ধকরণ করা হবে, সেটি নির্ভর করে এটি কোন কাজে ব্যবহার করা হবে, তার ওপর। স্বাভাবিকভাবেই খাওয়ার জন্য অত্যন্ত বিশুদ্ধ পানি লাগলেও জমিতে সেচকাজের জন্য তত বিশুদ্ধ পানির দরকার হয় না। সাধারণত যেসব প্রক্রিয়ায় পানি বিশুদ্ধ করা হয়, সেগুলাে হলাে পরিস্রাবণ, ক্লোরিনেশন, ফুটন, পাতন ইত্যাদি। নিচে এই প্রক্রিয়াগুলাে বর্ণনা করা হলাে :

১. পরিস্রাবণ : পরিস্রাবণ হলাে তরল আর কঠিন পদার্থের মিশ্রণ থেকে কঠিন পদার্থকে আলাদা করার একটি প্রক্রিয়া । পানিতে অদ্রবণীয় ধুলা – বালির কণা থেকে শুরু করে নানারকম ময়লা আবর্জনার কণা থাকে । এদেরকে পরিস্রাবণ করে পানি থেকে দূর করা হয় । এটি করার জন্য পানিকে বালির স্তরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত করা হয় , তখন পানিতে অদ্রবণীয় ময়লার কণাগুলাে বালির স্তুরে আটকে যায় । বালির স্তর ছাড়াও খুব সূক্ষ্মভাবে তৈরি কাপড় ব্যবহার করেও পরিস্রাবণ ক যায়। বর্তমান সময়ে আমাদের অনেকের বাসায় আমরা যেসব ফিল ব্যবহার করি, সেখানে আরাে উন্নতমানের সামগ্রী দিয়ে পরিস্রাবণ করা হয় ।

২. ক্লোরিনেশন : যদি পানিতে রােগ সৃষ্টিকারী জীবাণু থাকে, তবে তা অবশ্যই দূর করতে হবে এবং সেটি করা হয় জীবাণুনাশক ব্যবহার করে। নানারকম জীবাণুনাশক পানি বিশুদ্ধ করার কাজে ব্যবহার করা হয়। এদের মাঝে অন্যতম হচ্ছে ক্লোরিন গ্যাস (CI2) । এছাড়া ব্লিচিং পাউডার [(Ca(OCl)cl] এবং আরও কিছু পদার্থ, যার মাঝে ক্লোরিন আছে এবং জীবাণু ধ্বংস করতে পারে, সেগুলাে ব্যবহার করা হয় । আমাদের দেশে বন্যার সময় পানি বিশুদ্ধ করার জন্য যে ট্যাবলেট বা কিট ব্যবহার করা হয়, সেটি হলাে মূলত সােডিয়াম। হাইপােক্লোরাইড ( Naocl),এর মাঝে যে ক্লোরিন থাকে, সেটি পানিতে থাকা

রােগ জীবাণুকে ধংস করে ফেলে। ক্লোরিন ছাড়াও ওজোন (63) গ্যাস দিয়ে অথবা অতিবেগুনি রশ্মি দিয়েও পানিতে থাকা রােগ জীবাণু ধ্বংস করা যায় । বােতলজাত পানির কারখানায় এ পদ্ধতি ব্যবহার করে পানিকে রােগ জীবাণুমুক্ত করা হয় ।

. ফুটন : পানির ফুটন প্রক্রিয়ায় পানিকে জীবাণুমুক্ত করা সম্ভব । পানিকে খুব ভালােভাবে ফুটালে এতে উপস্থিত জীবাণু ধ্বংস হয়ে যায় । ফুটন শুরু হওয়ার পর ১৫২০ মিনিট ফুটালে সেই পানি জীবাণুমুক্ত হয় । বাস – বাড়িতে খাওয়ার জন্য এটি একটি সহজ এবং সাশ্রয়ী প্রক্রিয়া।

৪. পাতন : যখন খুব বিশুদ্ধ পানির প্রয়ােজন হয়, তখন পাতন প্রক্রিয়ায় পানি বিশুদ্ধ করা হয় । যেমন : ঔষধ তৈরির জন্য, পরীক্ষাগারে রাসায়নিক পরীক্ষা – নিরীক্ষার জন্য পুরােপুরি বিশুদ্ধ পানির প্রয়ােজন হয় । এই প্রক্রিয়ায় একটি পাত্রে পানি

নিয়ে তাপ দিয়ে সেটাকে বাষ্পে পরিণত করা হয়। পরে ঐ বাম্পকে আবার ঘনীভূত করে বিশুদ্ধ পানি সংগ্রহ করা । হয় । এই প্রক্রিয়ায় বিশুদ্ধ করা পানিতে অন্য পদার্থ থাকার সম্ভাবনা খুবই কম থাকে ।

নির্দেশনা

পাঠ্যবইয়ের সহায়তা নিতে পারে পরীক্ষণ কাজে সাবধানতা অবলম্বন করবে। দূষিত পানি পরীক্ষণের নিমিত্তে পান করা যাবে না।

মূল্যায়ন রুব্রিক্স

অতি উত্তম:

  •  সকল ক্ষেত্রে সঠিক তথ্য উপস্থাপন
  •  পরীক্ষণ সম্পূর্ণরূপে সঠিক
  •  বিষয়বস্তুর গভীরতা পরিপূর্ণমাত্রায় অনুধাবন
  •  সমস্যা চিহ্নিতকরণের সম্পূর্ণ সক্ষমতা

উত্তম:

  • অধিকাংশক্ষেত্রে সঠিক তথ্য উপস্থাপন
  • পরীক্ষণ অধিকাংশই সঠিক
  •  বিষয়বস্তুর গভীরতা অধিকাংশ অনুধাবন
  • অধিকাংশ সমস্যা চিহ্নিতকরণ সক্ষম

ভালো:

  • বেশকিছু ক্ষেত্রে সঠিক তথ্য উপস্থাপন
  • পরীক্ষণ অর্ধেকমাত্রায় সঠিক
  • বিষয়বস্তুর গভীরতা আংশিক অনুধাবন
  • অল্পকিছু সমস্যা চিহ্নিতকরণ সক্ষম

অগ্রগতি প্রয়ােজন:

  • সঠিক তথ্য উপস্থাপনে অক্ষম
  • পরীক্ষণ সঠিক নয়
  • বিষয়বস্তুর গভীরতা নেই
  • সমস্যা চিহ্নিতকরণে অক্ষম
Updated: June 1, 2021 — 6:52 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *